অনলাইন ডেস্ক 19

নেতানিয়াহু-গ্যালান্ত ও হামাসের ৩ নেতাকে গ্রেপ্তারের আবেদন

অনলাইন ডেস্ক : যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ত এবং হামাসের তিন নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার, মোহাম্মদ আল-মাসরি ও ইসমাইল হানিয়ের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির অনুরোধ করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রধান কৌঁসুলি।

প্রধান কৌঁসুলির কার্যালয় থেকে আজ সোমবার (২০ মে) জানানো হয়েছে, তারা যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আবেদন জানিয়েছেন।

 

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রধান কৌঁসুলি করিম খানের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ত এবং হামাস নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার, মোহাম্মদ আল-মাসরি ও ইসমাইল হানিয়ে— এই পাঁচজন ইসরায়েল বা গাজা উপত্যকায় সংঘটিত যুদ্ধাপরাধ এবং মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের জন্য দায়বদ্ধ বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

তবে ইসরায়েল বরাবরই গাজায় যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

 

এদিকে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদনকে ‘কলঙ্কজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কাটজ।

অন্যদিকে হামাস কর্তৃপক্ষ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির এই আবেদন খারিজের আহ্বান জানিয়ে বলেছে, এর মাধ্যমে ঘাতক ও ভুক্তভোগীকে একই দৃষ্টিতে দেখা হচ্ছে। হামাসের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, আইসিসির সিদ্ধান্ত ‘ভুক্তভোগীকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার সমান’।

 

একইসঙ্গে ইসরায়েলের কর্মকর্তা যারা যুদ্ধের নির্দেশ দিয়েছে এবং যেসব সৈন্য যুদ্ধাপরাধে অংশ নিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আহ্বান জানিয়েছে হামাস।

গত ৭ অক্টোবর হামাসের হামলার পর ইসরায়েল গাজায় নির্বিচার সামরিক অভিযান শুরু করেছে। এতে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

এই বিভাগের আরও খবর

অসহনীয় গরম : মক্কায় ৫৭৭ জন হজযাত্রীর মৃত্যু
অসহনীয় গরম : মক্কায় ৫৭৭ জন হজযাত্রীর মৃত্যু

অসহনীয় গরম : মক্কায় ৫৭৭ জন হজযাত্রীর মৃত্যু

রাশিয়াকে সমর্থন দেওয়ার অবস্থান না বদলালে চীনকে পরিণতি ভোগ করতে হবে : ন্যাটো
রাশিয়াকে সমর্থন দেওয়ার অবস্থান না বদলালে চীনকে পরিণতি ভোগ করতে হবে : ন্যাটো

রাশিয়াকে সমর্থন দেওয়ার অবস্থান না বদলালে চীনকে পরিণতি ভোগ করতে হবে : ন্যাটো

ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে নিহত ১০, বাংলাদেশিসহ জীবিত উদ্ধার ৫১
ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে নিহত ১০, বাংলাদেশিসহ জীবিত উদ্ধার ৫১

ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে নিহত ১০, বাংলাদেশিসহ জীবিত উদ্ধার ৫১

২৪ বছর পর রাষ্ট্রীয় সফরে উত্তর কোরিয়ায় পুতিন
২৪ বছর পর রাষ্ট্রীয় সফরে উত্তর কোরিয়ায় পুতিন

২৪ বছর পর রাষ্ট্রীয় সফরে উত্তর কোরিয়ায় পুতিন

আরো বাড়ল ঢাকার জীবনযাত্রার ব্যয়
আরো বাড়ল ঢাকার জীবনযাত্রার ব্যয়

আরো বাড়ল ঢাকার জীবনযাত্রার ব্যয়

যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু
যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

৪০ হাজারের বেশি মুসল্লি নিয়ে আল-আকসায় ঈদের জামাত
৪০ হাজারের বেশি মুসল্লি নিয়ে আল-আকসায় ঈদের জামাত

৪০ হাজারের বেশি মুসল্লি নিয়ে আল-আকসায় ঈদের জামাত

ইউরো ম্যাচের আগে হামলার চেষ্টা, পুলিশের গুলিতে হামলাকারী আহত
ইউরো ম্যাচের আগে হামলার চেষ্টা, পুলিশের গুলিতে হামলাকারী আহত

ইউরো ম্যাচের আগে হামলার চেষ্টা, পুলিশের গুলিতে হামলাকারী আহত

রাফায় বিস্ফোরণে নিহত ৮ ইসরায়েলি সেনা
রাফায় বিস্ফোরণে নিহত ৮ ইসরায়েলি সেনা

রাফায় বিস্ফোরণে নিহত ৮ ইসরায়েলি সেনা

‘লাব্বাইক’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত আরাফাতের ময়দান
‘লাব্বাইক’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত আরাফাতের ময়দান

‘লাব্বাইক’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত আরাফাতের ময়দান

উত্তরাখণ্ডে গাড়ি খাদে পড়ে ১২ জনের মৃত্যু
উত্তরাখণ্ডে গাড়ি খাদে পড়ে ১২ জনের মৃত্যু

উত্তরাখণ্ডে গাড়ি খাদে পড়ে ১২ জনের মৃত্যু

‘ইসরাইল যুদ্ধাপরাধ করেছে’ প্রতিবেদনের সমর্থন দিলেন মার্কিন সিনেটর
‘ইসরাইল যুদ্ধাপরাধ করেছে’ প্রতিবেদনের সমর্থন দিলেন মার্কিন সিনেটর

‘ইসরাইল যুদ্ধাপরাধ করেছে’ প্রতিবেদনের সমর্থন দিলেন মার্কিন সিনেটর

close